ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ  বুধবার ● ২১ অক্টোবর ২০২০ ● ৬ কার্তিক ১৪২৭
ই-পেপার   বুধবার ● ২১ অক্টোবর ২০২০
শিরোনাম: আর্মেনিয়ার ৩টি ড্রোন ভূপাতিত করল আজারবাইজন       করোনায় ২৪ মৃত্যু, শনাক্ত ১৫৪৫       ধর্ষণের ঘটনায় সালিশের উদ্যোগ বন্ধের নির্দেশ        আগামী মাসে শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধ করা হবে: পাটমন্ত্রী       পি কে হালদার দেশে পা রাখার সঙ্গে সঙ্গে গ্রেফতারের নির্দেশ       মাধ্যমিকে পরীক্ষা নয়, অ্যাসাইনমেন্টে মূল্যায়ন       সৌদি যুবরাজের বিরুদ্ধে খাশুগজির বাগদত্তার মামলা      
চালু হচ্ছে ঠাকুরগাঁও রেশম কারখানা
গোলাম সারোয়ার সম্রাট, ঠাকুরগাঁও
Published : Wednesday, 14 October, 2020 at 7:34 PM

দেশের উত্তবঙ্গে সরকারিভাবে পরিচালিত দুটি রেশম কারখানার মধ্যে রাজশাহী রেশম কারখানা সম্প্রতি চালু করা হলেও দেড় যুগ ধরে বন্ধ হয়ে আছে ঠাকুরগাঁও রেশম কারখানাটি। ঠাকুরগাঁও রেশম কারখানা চালু হলে পেশায় ফিরতে চান ১০ হাজার রেশমচাষি।

বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের অধীন ঠাকুরগাঁও রেশম কারখানা পুনরায় চালু করার জন্য সম্প্রতি পরিদর্শন করেন বাংলাদেশ রেশম বোর্ডের মহাপরিচালক মু. আব্দুল হাকিম। তিনি সব দেখে জানান, তা কয়েক ধাপে শিগগিরই চালু করা সম্ভব। তবে ধীরে ধীরে মেশিনগুলো পর্যায়ক্রমে চালু করা হবে। এক্ষেত্রে জেলা প্রশাসকসহ স্থানীয় জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

ঠাকুরগাঁও রেশম কারখানা পরিদর্শনকালে গত ১২ অক্টোবর তিনি বলেন, কেবিনেট সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কারখানাটি ঠিক করা সম্ভব। সে জন্য ৯ সদস্যের একটি টেকনিক্যাল কমিটি করা হয়েছে। এই কমিটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে একটা স্টেটমেন্ট তৈরি করবে। সেই সিস্টেমের ভিত্তিতে ই-টেন্ডার করা হবে। ই-টেন্ডার করার পর ওয়ার্ক অর্ডার দেওয়া হবে। ওয়ার্ক অর্ডার দেওয়ার পর যথানিয়মে কাজ হবে। কাজ হলে তখন এটা চালু করা সম্ভব হবে বলে জানান এই মহাপরিচালক। তিনি আরো বলেন, এটা হঠাৎ করে চালু করা সম্ভব নয়। নিয়মানুযায়ী প্রসেস মেইনটেন্ট করে চালু করা হবে। 

মহাপরিচালক আরো বলেন, এই কারখানাটি স্থানীয় ঐতিহ্যের প্রতীক। এখানে যেন কোনো ধরনের নৈরাজ্য না হয় সেজন্য তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। পরিদর্শন শেষে তিনি টেকনিক্যাল কমিটির সঙ্গে মতবিনিময় সভায় মিলিত হন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক ড. কে এম কামরুজ্জামান সেলিম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক নূর কুতুবুল আলম, নেসকো লিমিটেডের নির্বাহী প্রকৌশলী সারওয়ার হোসেন ও অন্যরা।

তিনি আরো বলেন, এটা হঠাৎ করে চালু করা সম্ভব নয়। নিয়মানুযায়ী প্রসেস মেইনটেন্ট করে চালু করা হবে। তবে ধীরে ধীরে সবগুলো মেশিন চালু করা হবে। এক্ষেত্রে জেলা প্রশাসকসহ স্থানীয় জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

ঠাকুরগাঁওয়ের দ্বিতীয় ভারী শিল্প-কারখানা রেশম কারখানাটি প্রায় ১৮ বছর ধরে বন্ধ রয়েছে। লোকসানের অজুহাতে এটি ২০০২ সালে বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এতে ১৩৪ শ্রমিক ও ১০ হাজার রেশম চাষি বেকার হয়ে পড়েছেন। কয়েক কোটি টাকায় বিএমআরই করার পরও কারখানাটি দীর্ঘদিন বন্ধ থাকায় কোটি কোটি টাকার মূল্যবান যন্ত্রপাতির ক্ষতি হয়েছিল। 

রেশম চাষ অতি লাভজনক একটি পণ্য। বছরে কমপক্ষে পাঁচবার রেশম চাষ করা যায়। দরিদ্র ও প্রান্তিক চাষিরা স্বল্প পুঁজিতে রেশম চাষ ও বিপণন করে তাদের জীবিকা নির্বাহ করতে পারেন। এ অবস্থায় ১৯৭৭-৭৮ সালে আরডিআরএস নামে একটি বেসরকারি সংস্থা ঠাকুরগাঁওয়ের দুরামারী নামক জায়গায় (বর্তমানে বিসিক শিল্প নগরীতে) এই রেশম কারখানাটি স্থাপন করে।

লাভজনক প্রতিষ্ঠান হওয়ায় ১৯৮১ সালে এই কারখানাটি রেশম বোর্ডের কাছে হস্তান্তর করা হয়। ধীরে ধীরে ১০ হাজার চাষি রেশম গুটি উৎপাদনের সঙ্গে সম্পৃক্ত হন। পরে টানা ২৬ বছরে এ কারখানাটি ছয় কোটি ৫০ লাখ টাকা লোকসান দেয়। এ অবস্থায় তৎকালীন বিএনপি সরকার ২০০২ সালের ৩০ নভেম্বর মিলটি বন্ধ ঘোষণা করে। ফলে কারখানায় কর্মরত ১৩৪ শ্রমিক ও ১০ হাজার রেশম চাষি বেকার হয়ে পড়েন। রেশম কারখানাটি বন্ধ হয়ে পড়ায় লাখ লাখ তুতগাছ কেটে জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা হয়। তন্মধ্যে কিছু রেশমচাষি তাদের পেশা কোনোমতে আঁকড়ে ধরে আছেন।

আজকালের খবর/এএইস


সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি : গোলাম মোস্তফা || সম্পাদক : ফারুক আহমেদ তালুকদার
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : হাউস নং ৩৯ (৫ম তলা), রোড নং ১৭/এ, ব্লক: ই, বনানী, ঢাকা-১২১৩।
ফোন: +৮৮-০২-৪৮৮১১৮৩১-৪, বিজ্ঞাপন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৯, সার্কুলেশন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৮
ই-মেইল : বার্তা- [email protected] বিজ্ঞাপন- [email protected]
দৈনিক আজকালের খবর লিমিটেডের পক্ষে গোলাম মোস্তফা কর্তৃক বাড়ি নং-৫৯, রোড নং-২৭, ব্লক-কে, বনানী, ঢাকা-১২১৩ থেকে প্রকাশিত ও সোনালী প্রিন্টিং প্রেস, ১৬৭ ইনার সার্কুলার রোড (২/১/এ আরামবাগ), ইডেন কমপ্লেক্স, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক আজকালের খবর
Web : www.ajkalerkhobor.com, www.eajkalerkhobor.com