ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ  মঙ্গলবার ● ৯ আগস্ট ২০২২ ● ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯
ই-পেপার  মঙ্গলবার ● ৯ আগস্ট ২০২২
শিরোনাম: লঞ্চের ধাক্কায় বাল্কহেড ডুবে ২ শ্রমিক নিখোঁজ       জ্বালানিকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী       বিদ্যুৎ-জ্বালানি তেল-গ্যাস ব্যবহারে সাশ্রয়ী হওয়ার আহ্বান রাষ্ট্রপতির        পবিত্র আশুরা আজ        ডোনাল্ড ট্রাম্পের বাড়িতে এফবিআই’র অভিযান       ৬ ব্যাংকের ট্রেজারি বিভাগের বিরুদ্ধে ব্যবস্থার নির্দেশ       জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিএনপির দুইদিনের কর্মসূচি      
আদালতের নির্দেশ মানছেন না ‘সাধারণ সম্পাদক’ নিপুণ!
আনন্দমেলা প্রতিবেদক
Published : Thursday, 4 August, 2022 at 7:19 PM, Update: 04.08.2022 7:23:12 PM

বাংলায় একটা প্রবাদ আছে- ‘গায়ে মানেনা আপনি মোড়ল’। সাধারণ চোখে দেখলে প্রবাদবাক্যটি চিত্রনায়িকা নিপুণের বেলায় যথার্থ। তিনি আদালতের নির্দেশনা উপেক্ষা করেই যেমন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির চেয়ারে আয়েশে গা ভাসিয়েছেন তেমনি বাধ্যবাধকতা থাকার পরও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রে সাক্ষর করেই চলছেন। আর এতে করে তার বিরেুদ্ধে আদালতের নির্দেশনা না মানার অভিযোগ উঠেছে। 

জানা গেছে- সম্প্রতি শিল্পী সমিতি থেকে বাদপড়া শিল্পীদের পরিচয়পত্র দেওয়া হয় সমিতি থেকে। সেই পরিচয়পত্রে সভাপতি হিসেবে ইলিয়াস কাঞ্চন ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নিপুণ আক্তারের স্বাক্ষর দেখা গেছে। পরিচয়পত্র পাওয়ার পর বেশ কয়েকজন শিল্পী সেগুলো ফেসবুকে শেয়ার করেন। এর পরই বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। নিপুণের এ কাজে নীরব ভূমিকায় থেকে বরেণ্য অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চণের সমর্থন থাকায় তাকেও কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন অনেকেই। আদালতের আদেশ অমান্য করায় এ নিয়ে চলছে ব্যাপক সমালোচনা। 

আদালতের চূড়ান্ত রায় হওয়ার আগেই শিল্পীদের পরিচয়পত্রে কেন তার স্বাক্ষর, এ সম্পর্কে জানতে চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তারের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি। পরে মেসেজ দিয়েও উত্তর পাওয়া যায়নি।

পরে এ নিয়ে মুঠোফোনে শিল্পী সমিতির সহ সাধারণ সম্পাদক সাইমন সাদিক বলেন- আমাদের আইনজীবী জানিয়েছেন নিপুণ আপার কাজ চালিয়ে যেতে সমস্যা নেই। সমস্যা থাকলে আদালত কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠাতো। যেহেতু পাঠায়নি তাই কাজ চালাতে সমস্যা আছে বলে মনে করি না। তাছাড়া সাধারণ শিল্পী জেনে বুঝে টাকা দিয়ে এই সাক্ষরে কার্ড সংগ্রহ করছে। সদস্যদের মনে প্রশ্ন থাকলে তারা কেন কার্ড নিতে যাবে। যেহেতু তারা নিচ্ছেন তাই ‘সাধারণ সম্পাদক’ হিসেবে নিপুণ আপার কাজ চালাতে সমস্যা দেখছি না। 

এ নিয়ে একই সুরে কথা বলেন সমিতির সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চন। তিনি বলেন- আদালত থেকে যেহেতু নিষেধ করা হয়নি তাই সাক্ষর করতে সমস্যা নেই। নিপুণ জেনেবুঝেই স্বাক্ষর করেছেন। 

অপরদিকে জায়েদ খান বলেন, নিপুণ অবৈধভাবে স্বাক্ষর করে পরিচয়পত্র দিচ্ছেন। এখানে সে অন্যায় করছে। কারণ, আদালত সাধারণ সম্পাদক পদের ওপর স্থগিতাদেশ দিয়ে রেখেছেন। আদালতের রায়কে শ্রদ্ধা জানিয়ে আমি কোনো ধরনের কাজে অংশ নিচ্ছি না। যেহেতু সে আদালতকে উপেক্ষা করেই যাচ্ছে তাই বিষয়টি আদালতের নজরে আনা দরকার। মানে আইনি পদক্ষেপে যাবো।

শিল্পী সমিতির নির্বাচনের ৬ মাস পেরিয়ে গেলেও এখনো সুরাহা হয়নি সাধারণ সম্পাদকের পদটি। সাধারণ সম্পাদকের পদ নিয়ে দ্বন্দ্ব এবং জায়েদ নিপুণের পরস্পরের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলার বিষয়ে আপিল বিভাগে গত ১২ জুন শুনানি হওয়ার কথা ছিল। তবে নির্ধারিত দিনে শুনানি হয়নি। সিডিউল জটিলতার কারণেই এই শুনানি হয়নি বলে জানা গেছে। 

গত ৬ জুন প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বাধীন আপিল বেঞ্চ শুনানির এ তারিখ ধার্য করে। এর আগে গত ২৩ মে দায়িত্বরত প্রধান বিচারপতি মো. নূরুজ্জামানের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ শুনানি ৫ জুন পর্যন্ত মুলতবি করেছিলেন।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি নিপুণ আক্তারের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা করেন জায়েদ খান। আদালতের নির্দেশ অমান্য করে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদকের চেয়ারে বসায় এ মামলা দায়ের করা হয় বলে জানান জায়েদ খানের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. আহসানুল করিম।

উল্লেখ্য, জায়েদ খান-নিপুণ আক্তার একসঙ্গে অভিনয় ও নানা সেবামূলক কাজে যুক্ত থাকলেও শিল্পী সমিতির নির্বাচন কেন্দ্র করে তাদের মাঝে তৈরি হয় দূরত্ব। নির্বাচনে ১৭৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন জায়েদ খান। নিপুণ আক্তার পান ১৬৩ ভোট। এরপর টাকা দিয়ে ভোট কেনাসহ একাধিক অভিযোগ আনেন নিপুণ। সেই জটিলতা এখনো ঝুলে আছে আদালতে। চলতি বছরের ২৮ জানুয়ারি এফডিসিতে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

আজকালের খবর/আতে


সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি : গোলাম মোস্তফা || সম্পাদক : ফারুক আহমেদ তালুকদার
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : হাউস নং ৩৯ (৫ম তলা), রোড নং ১৭/এ, ব্লক: ই, বনানী, ঢাকা-১২১৩।
ফোন: +৮৮-০২-৪৮৮১১৮৩১-৪, বিজ্ঞাপন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৯, সার্কুলেশন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৮
ই-মেইল : বার্তা বিভাগ- [email protected] বিজ্ঞাপন- [email protected]
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক আজকালের খবর
Web : www.ajkalerkhobor.net, www.ajkalerkhobor.com