ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ  সোমবার ● ৬ ডিসেম্বর ২০২১ ● ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
ই-পেপার  সোমবার ● ৬ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম: তথ্য প্রতিমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি বিএনপির       ৫ম ধাপে সিলেট-চট্টগ্রাম বিভাগে নৌকা পেলেন যারা       কক্সবাজারে বন্দুকযুদ্ধে দুই জন নিহত       স্বাধীনতা বিরোধী চক্র এখনও নানাভাবে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে       বাংলাদেশের অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়িয়েছে : বিশ্বব্যাংক       অর্থপাচারকারী প্রিন্স মুসা, মিন্টু-তাবিথদের তালিকা হাইকোর্টে       উপকূলে শঙ্কা কাটেনি, তিন নম্বর সংকেত বহাল      
নৌকায় উঠতে চান কোটালীপাড়ার পাঁচ ডজন নেতা
কামরুল হাসান, কোটালীপাড়া
Published : Saturday, 16 October, 2021 at 6:25 PM

নৌকায় উঠতে চান গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার ১১ ইউনিয়নের অন্তত পক্ষে পাঁচ ডজন নেতা। তারা সবাই আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী। আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনকে সামনে রেখে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় বইতে শুরু করেছে নির্বাচনী হাওয়া। ইতোমধ্যে চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন পেতে আওয়ামী লীগের পাঁচ ডজন নেতাকর্মী বিলবোর্ড, ব্যানার-পোস্টার দিয়ে জানান দিচ্ছেন। শুভেচ্ছা পোস্টারের মাধ্যমে জানান দিয়েছেন নিজেদের প্রার্থিতা। এ ছাড়াও তাদের কর্মী-সমর্থকরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। বর্তমান চেয়ারম্যানরা ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শারদীয় দুর্গাপূজায় নিজস্ব তহবিল থেকে আর্থিক সহযোগিতা করছেন এবং মণ্ডপে মণ্ডপে গিয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় করে আসছেন। প্রার্থীরা যোগাযোগ রাখছেন কেন্দ্র ও জেলার নেতাদের সঙ্গে। উঠান বৈঠকসহ বিভিন্ন আঙ্গিকে গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন তারা। 

নৌকার টিকিট পেতে যারা ১১ টি ইউনিয়নের মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন তাদের মধ্যে রয়েছেন- আমতলী ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান শেখ, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী রাফেজা বেগম, আওয়ামী লীগ নেতা বিরঙ্গ চন্দ্র বাড়ৈ, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদকের ছেলে মাসুদ রানা ও আমতলী ইউনিয়ন কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক হানিফ শেখ। 

রাধাগঞ্জ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সভাপতি সর্বানন্দ বৈদ্য, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক মোল্লা, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফরিদ আহম্মেদ সিকদার, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ভীম বাগচী, ব্যবসায়ী সরোজ বিশ্বাস, সমাজসেবক কামাল হোসেন হাওলাদার ও বর্তমান চেয়ারম্যান অমৃত লাল হালদার। রামশীল ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ খোকন বালা, রামশীল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শ্যামল কান্তি বিশ্বাস, যুবলীগ সভাপতি তমাল বাড়ৈ, মিহির তালুকদার, তরুন সমাজসেবক গৌতম মুন্সী, মনোরঞ্জন জয়ধর।

বান্ধাবাড়ি ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের কৃষিবিষয়ক সম্পাদক আতিকুজ্জামান বাদল, ব্যবসায়ী হান্নান মোল্লা, বান্ধাবাড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মানিক, বর্তমান চেয়ারম্যান মহব্বত হোসেন গোলদার, উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক রতণ কুমার মিত্র, লিপন মিয়া, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজ শেখ, আমিনুল ইসলাম পাইক।

সাদুল্লাপুর ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগের সভাপতি ভীম চন্দ্র বাড়ৈ, সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা সত্যেন্দ্র নাথ জয়ধর, আওয়ামী লীগ নেতা সুব্রত বাড়ৈ, প্রশান্ত কুমার বাড়ৈ ও সমাজসেবক বিমল সিকদার।

কলাবাড়ি ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান মাইকেল ওঝা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি কৃষ্ণ প্রসাদ মজুমদার, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি চারু চন্দ্র গাইন, উপজেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট বিজন বিশ্বাস, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক লিটন বাড়ৈ, সূর্য্যকান্ত হাজরা, দেবদাস মজুমদার, স্বরবেশ্বর মণ্ডল। 

কুশলা ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম বাদল, উপজেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান রফিকুল ইসলাম তালুকদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযোদ্ধাবিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা নাসিরউদ্দিন তালুকদার, কুশলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ মো. জামান, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান চৌধুরী সুলতান মাহামুদ কালু। 

হিরন ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি গোলাম কিবরিয়া দাড়িয়া, জেলা পরিষদ সদস্য উপজেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক মাজহারুল আলম পান্না, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মাহাফুজ হাসনাত কামরুল, আওয়ামী লীগ নেতা এস এম ইস্রাফিল।

পিনজুর ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হাজি আমিনুজ্জামান খান মিলন, বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু সাইদ সিকদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক প্রভাষক আলাউদ্দিন হাওলাদার ও উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান মুন। 

কান্দি ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান উত্তম কুমার বাড়ৈ, সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শিক্ষক মনীন্দ্র নাথ রায়, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট বিষ্ণু অধিকারী, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার মধু ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ধীরেন্দ্রনাথ মধু।

শুয়াগ্রাম ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জজ্ঞেস্বর বৈদ্য অনুপ, শিক্ষক মনোতোষ বৈদ্য, অধ্যক্ষ রনজিত কুমার মধু, বর্তমান চেয়ারম্যান মণীন্দ্র নাথ হালদার, আওয়ামী লীগ নেতা কামাল গাজী, ডাক্তার জাহিদ হোসেন রিন্টু, সুধা রঞ্জন রায়সহ প্রায় পাঁচ ডজন নেতা মনোনয়ন প্রত্যাশী।
আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান শেখ বলেন, আমি নির্বাচিত হয়ে ইউনিয়নের ব্যাপক উন্নয়ন করেছি এবং ছাত্রলীগ শেষে দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করে আসছি। আশা করি দল আমাকে মনোনয়ন দেবে। আমি নৌকা প্রতীক পেয়ে নির্বাচিত হলে অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করবো। সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক মোল্লা বলেন, সবসময় জনগণের খেদমত করেছি। দল আমাকে মনোনয়ন দিলে আমি যদি নির্বাচিত হতে পারি তাহলে বাকিটা জীবন জনগণের সেবা করে যাবো। বর্তমান চেয়ারম্যান খোকন বালা বলেনস জনগণের সুখ-দুঃখে পাশে থেকেছি। আশা করি দল আমার কাজের মূল্যায়ন করে মনোনয়ন দেবে।

মনোনয়ন প্রত্যাশী আতিকুজ্জামান বাদল বলেন, আমি দলের জন্য অনেক কাজ করেছি। আশা করি দল আমাকে মনোনয়ন দেবে। 

একে


সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি : গোলাম মোস্তফা || সম্পাদক : ফারুক আহমেদ তালুকদার
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : হাউস নং ৩৯ (৫ম তলা), রোড নং ১৭/এ, ব্লক: ই, বনানী, ঢাকা-১২১৩।
ফোন: +৮৮-০২-৪৮৮১১৮৩১-৪, বিজ্ঞাপন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৯, সার্কুলেশন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৮
ই-মেইল : বার্তা বিভাগ- [email protected] বিজ্ঞাপন- [email protected]
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক আজকালের খবর
Web : www.ajkalerkhobor.net, www.ajkalerkhobor.com